Raozan Upazila-রাউজান

Community
Rating
Likes Talking Checkins
2 0
About Raozan (Bengali: রাউজান) is an Upazila of Chittagong District in the Division of Chittagong.It was established in 1947.
Description রাউজান বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা।

অবস্থান
রাউজান অক্ষাংশ ২২.৫৩৩৩ দক্ষিণ, ৯১.৯৩৩৩ পূঃ এ অবস্থিত। এখানে ৪৫৭৭৫ খানাঘর এবং মোট আয়তন ২৪৬.৫৮কিমি²। দুই প্রধান নদী রাউজান উপজেলা উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। আর এগুলো হলো কর্ণফুলী ও হালদা নদী । রাউজান উপজেলার উত্তরে ফটিকছড়ি উপজেলা, দক্ষিণে বোয়ালখালী ও কণর্ফুলী নদী, পূর্বে রাঙ্গুনীয়া ও কাউখালী (রাঙ্গামাটি), পশ্চিমে হাটহাজারী ও ফটিকছড়ি উপজেলা দ্বারা বেষ্টিত।

আয়তন
২৪৩ বর্গ কিলোমিটার

জনসংখ্যা
মোট জনসংখ্যা ৩,২৫,৩৮৯ জন (প্রায়)।
পুরুষ ১,৬৩,৯৬৩ জন (প্রায়)।
মহিলা ১,৬১,৪২৬ জন (প্রায়)।
জনসংখ্যা ৩২৫৩৮৯; পুরুষ ১৬৩৯৬৩, মহিলা ১৬১৪২৬। মুসলিম ২৪১২৫০, হিন্দু ৫৯৪৯৮, বৌদ্ধ ২৪১৮৮, খ্রিস্টান ২২৬ এবং অন্যান্য ২২৭। এ উপজেলায় মারমা, ত্রিপুরা, মগ প্রভৃতি আদিবাসী জনগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে।


প্রশাসনিক এলাকা
নির্বাচনী এলাকা চট্টগ্রাম-৬। মোট ভোটার সংখ্যা ২,১৯,৯১৫ জন।উপজেলার মোট গ্রামের সংখ্যা ৭৬ টি। উপজেলার মোট মৌজা ৬০ টি। রাউজান উপজেলায় একটি পৌরসভা ও ১৫ টি ইউনিয়ন আছে । পৌরসভা হচ্ছে: রাউজান
ইউনিয়ন গুলো হচ্ছে:
১। হলদিয়া ২। ডাবুয়া ৩। চিকদাইর ৪। গহিরা ৬। বিনাজুরী ৭। রাউজান ৮। কদলপুর ৯। পাহাড়তলী ১০। পূর্ব গুজরা ১১। পশ্চিম গুজরা ১২। উরকিরচর ১৩। নোয়াপাড়া ১৪। বাগোয়ান ১৫। নোয়াজিশপুর ও সুলতানপুর।

ইতিহাস
রাউজান উপজেলার প্রাচীন ইতিহাসের সাথে বৌদ্ধ উপনিবেশের সম্পর্ক ওতপ্রোতভাবে জড়িত।জানা গেছে যে, রাউজানে আদি বসতি স্থাপনকারী হলো বৌদ্ধরা। বিনাজুরীতে প্রায় ৪ শত বছরের প্রাচীন বৌদ্ধবিহার রয়েছে। রাউজান এলাকার নামকরণের সাথেও বৌদ্ধ ঐতিহ্য জড়িত। কারন মোগল সুবেদার শায়েস্তা খান কর্তৃক ১৬৬৬ খৃষ্টাব্দে চট্টগ্রাম বিজয়ের প্রায় ১০০০ বছর পূর্ব থেকে সারা চট্টগ্রাম অঞ্চলই বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী মগ বা আরাকানীদের অধিকারে ছিল।ফলে রসিকতা করে অনেকে চট্টগ্রামকে ‘মগের মুল্লুক’ও বলতেন।সে অনুযায়ী ধারণা করা হয় যে, রাউজানও একসময় আরাকান রাজ্যের অন্তর্গত ছিল। আরাকানী ভাষায় এটিকে বলা হতো ‘রজোওয়াং’ বা রাজ পরিবারের ভূমি। আর এ নামের অপভ্রংশ থেকেই রাউজান নামের উৎপত্তি হয়েছে বলে বিশিষ্ট পন্ডিতগণের ধারণা। ১৯৪৭ সালের আগষ্ট মাসে রাউজান থানার কার্যক্রম শুরু করা হয়।৯০ এর দশকে এটি উপজেলা এবং পৌরসভা ঘোষিত হয় ২০০০ সালে।প্রশাসন রাউজান থানা গঠিত হয় ১৯৪৭ সালে। থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয় ১৯৮৪ সালে।

শিক্ষার হার
রাউজান উপজেলার শিক্ষার হার ৬৪.১৩%।
পুরুষ ৬৭%, মহিলা ৬১.৩%।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
রাউজান উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয় ১৬৮টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৫৯টি, মাদ্রাসা ২১টি, কমিউনিটি স্কুল ৬টি, কেজি স্কুল ১১টি, কলেজ ৯টি ও বিশ্ববিদ্যালয় ১টি ।
উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: রাউজান আর্যমৈত্রেয় ইনিস্টিটিউশন (১৯৩১), রামগতি রামধন আব্দুল বারী চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় (১৮৯৮), রাউজান আর আর এসি মডেল পাইলট হাইস্কুল (১৮৯৮), কোয়েপাড়া জগৎ চন্দ্র সেন কৃষি ও শিল্প উচ্চ বিদ্যালয়, মহামুনি এংলো-পালি উচ্চ বিদ্যালয় (১৯০২), নোয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় (১৯০৪), উত্তর গুজরা বিশ্বাস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৮১১), কেউটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৮২০), কদলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৮৫০), রাউজান আর্যমৈত্রেয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৮৫১), উত্তরা নবতারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৮৬৮), কাগতিয়া এশাতুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসা (১৯৩২), রাউজান কলেজ (১৯৬৩), চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৬৮) ।

সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান
লাইব্রেরি ২, ক্লাব ১০৪, খেলার মাঠ ৫১, মহিলা সংগঠন ২৯।

হাটবাজার
রাউজান ইউনিয়নের রমজান আলী চৌধুরী, নাতোয়ান বাগিচা, হলদিয়া ইউনিয়নের বইজ্যার হাট, উত্তর সর্তা দরগাহছড়ি বাজার, আমির হাট, ফকির টিলা বাজার, ডাবুয়া ইউনিয়নের বাইন্যা হাট, মুছা শাহ বাজার, চিকদাইর ইউনিয়নের হক বাজার, নোয়াজিশ পুর ইউনিয়নের ফতেহ নগর বাজার, নয়া হাট, বিনাজুরী ইউনিয়নের কাগতিয়া বাজার, পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের রঘু নন্দন চৌধুরী হাট, মগদাই বাজার, পুর্ব গুজরা ইউনিয়নের অলি মিয়ার হাট, নতুন চৌধুরী বাজার, উরকির চর ইউনিয়নের জিয়া বাজার, আলা মিয়ার হাট, কেরানী হাট, নোয়াপাড়া ইউনিয়নের চৌধুরী হাট বাজার, ভ্রাম্বন হাট, বাগোয়ান ইউনিয়নের গশ্টি নয়া হাট, লাম্বুর হাট, খেলারঘাট বাজার, পাহাড়তলী ইউনিয়নের উন সত্তর পাড়া গৌরি শংকর হাট, কদলপুর ইউনিয়নের ঈশার ভট্টের হাট, সোমবাইজ্যা হাট।

পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকী
সুপ্রভাত রাউজান, রাউজাননিউজ, রাউজানকাগজ
বার্ষিক: কম্পাস, সন্তর্পণ, সম্ভাবা; অবলুপ্ত: মাসিক অঙ্গীকার, পাক্ষিক রাউজান, মাসিক শুকতারা, ত্রৈমাসিক আবির্ভাব, পাক্ষিক রাউজান বার্তা, লুম্বিনী, নব সমতট, কল্যাণ, বোধন, অগ্রসার বার্তা, বোধি।

ব্যবসা বাণিজ্য
কৃষি:
চট্টগ্রামের মরিচের চাহিদা রয়েছে ব্যাপক। ঐ মরিচের আকার, রং ও স্বাদে খুবই অতুলনীয়। রাউজানের বিস্তৃত এলাকা জুড়ে প্রচুর মরিচ জন্মে। মরিচ ছাড়াও ধনিয়া, পিয়াজ, বাদাম, আখ, তরমুজ, শশা, সরিষা, কলই, ফেলন প্রভৃতি উৎপাদিত হয়। রাউজান কৃষিগবেষণা কেন্দ্রের তত্ত্বাবধানে হলদিয়াও পাহাড়তলী এলাকার পাহাড়ে আদা, রসুন, পিয়াজ, হলুদ, তেজপাতা, দারুচিনিসহ, কলা, নারিকেল, আনারস, সুপারী, জলপাই ইত্যাদির চাষ করা হচ্ছে। রাউজান কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট নতুন জাতের বিভিন্ন বীজ উৎপাদন করে এবং দশ হাজার জাতের বীজসংরক্ষণ করে।
অন্যান্য শিল্প ও ব্যবসা বাণিজ্য:
হালদানদীর মুখে ১৯৬০ খ্রি: পর্যন্ত মদুনাঘাট জিয়া বাজারে প্রচুর শুটকি উৎপন্ন হতো। বাঁশখালীর লোকেরা গদুনা নৌকা করে প্রচুর শুটকি ও লবণ হালদা নদী হয়ে খালের মধ্যে প্রবেশ করে বেচা কেনা করত। বাঁশ, বেত ও পাটি পাতার তৈরী কুটির শিল্পের জন্য রাউজান বিখ্যাত ছিল। হাল চাষের জন্য লাঙ্গল জোয়াল, ইত্যাদিতে কাঠ পাহাড়ে উৎপন্ন হতো। রাউজানে কুটির শিল্পের বিশেষতঃলাঙ্গল জোয়াল তৈরির জন্য বিখ্যাত ছিল হালের গরু, কোরবানীর জন্য রাউজানের চৌধুরী হাট, সুদূর ইংরেজ ও পাকিস্তান আমলে নামকরা বাজার ছিল। কোরবানী গরুর জন্য ব্রাহ্মণ হাট এখন উত্তর চট্টগ্রামে বিখ্যাত হয়ে উঠেছে।

ঐতিহাসিক স্থান
মাস্টারদা সূর্যসেনের বাস্ত্তভিটা ও স্মৃতিসৌধ, মহামুনি মন্দির প্রাঙ্গণ, জগৎপুর আশ্রম, মহাকবি নবীনচন্দ্র সেনের বাস্ত্তভিটা ও স্মৃতিসৌধ, ডাবুয়া ধরের বাড়ি, রায়মুকুট দীঘি, লস্কর উজির দীঘি, ঈসা খাঁ দীঘি।

প্রধান কৃষি ফসল
ধান, গম, আলু, আখ, মরিচ, চীনাবাদাম, শাকসবজি, সরিষা, তিল, ডাল।
বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় ফসলাদি: কাউন, তিসি, খেসারি।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায়: সনাতন বাহন পাল্কি, গরুর গাড়ি, ঘোড়ার গাড়ি।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১, পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ৮, উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ৩।

ফায়ার স্টেশন : ১টি

জলাশয় প্রধান নদী
কর্ণফুলি ও হালদা নদী।

শিল্প ও কলকারখানা
তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র, রাবার উৎপাদন কেন্দ্র, ঔষধ তৈরির কারখানা।
কুটিরশিল্প, মৃৎশিল্প, লৌহশিল্প, বুনন শিল্প, কাঠের কাজ, বাঁশের কাজ।

প্রধান ফল-ফলাদি
আম, জাম, কাঁঠাল, পেঁপে, লিচু, কলা, নারিকেল, বাংগী, পেয়ারা, আমড়া, তাল।


Raozan is located at
22°31′N 91°54′E.It has 45775 units of house hold and total area 246.58 km².Two main rivers are flowing on Raozan Upazila.They are Karnaphuli and Halda.Raozan is surrounded by Fatikchhari Upazila on the north,Boalkhali Upazila and karnafuli river on the south,Rangunia and Kawkhali(Rangamati)upazilas on the east,Hathazari and Fatikchhari Upazila on the west.
Raozan Upazila (Chittagong district) is bounded by Fatikchhari upazila on the north, Boalkhali upazila and Karnafuli river on the south, Rangunia and Kawkhali (Rangamati) upazilas on the east, Hathazari and Fatikchhari upazila on the west. Main rivers: Karnafuli and Halda.

Raozan (Town) a municipal town, consists of 9 wards and 21 mahallas. It has an area of 9.97 sq km. It has a population of 53817; male 51.61% and female 48.39%. Density of population is per sq km 5398. The town has one dakbungalow.

Raozan thana, now an upazila, was established in 1947. The upazila consists of 1 municipality, 15 union parishads, 64 mouzas and 76 villages.
Raozan's Union are : Bagoan,Binajuri,Chikdair, Dabua,Purba Guzara,Gahira,Haludia,Kadalpur, Noajispur,Noapara,Pahartali,Raozan,Urkirchar,
Paschim Guzara,Sultanpur

Archaeological heritage and relics: Jagannath Debaloi and the Gateway (Dabua), Koileshsore Shiva Mandir and Shiva Statue (Dabua, 19th century), Mohamuni Buddhist Temple (Pahartoli), Chulamoni Buddhist Vihara (Lathichari), Aryan Moittro Buddhist Vihara (sleeping statue), Isa Khan Dighi, Lashkar Uzir Dighi.

Historical events: Raozan is considered as the original home of the Buddhists. According to the Arakani dialect this area is called 'Rajoaang' (Raozan) or the land of the royal families.

Religious institutions: Mosque 333, temple 51, Buddhist temple 67 and sacred place 1, most noted of which are Hazrat Yasin Shah Mazar, Hazrat Sikander Shah Mazar, Akbar Shah Mazar, Hazrat Abdul Aziz Naksh Bandi Mazar, Kaileshsar Shiva Mandir, Dabua Jagannath Mandir, Lathichari Buddha Mandir, Moha Moni Buddha Mandir and Sultanpur Kali Mandir.

As of the 1991 Bangladesh census: Population 274344; male 50.58%, female 49.42%; Muslim 70.71%, Hindu 20.42%, Buddhist 8.69% and others 0.18%; ethnic nationals: Jummo, Tripura and Magh.

Literacy and educational institutions: Average literacy 52.5%; male 58.4% and female 46.6%. Educational institutions: college 6, technical college 1, high school 51, junior school 2, government primary school 147, non-government primary school 18, madrasa 14 and Parli and Sanskrit college 2. Noted educational institution: Ramgati Ramdhan Abdul Bari Chowdhury High School (1898).

Cultural organisations: Public library 2, club 104, playground 51, women's organisation 29.

Main occupations: Agriculture 19.55%, agricultural labourer 10.66%, wage labourer 3.02%, industry, commerce, transport and construction 21.65%, service 26.28% and others 18.84%.

Land use: Total cultivable land 13399.84 hectares, fallow land 4122.62 hectares; reserve land 6145.29 hectares; single crop 14.93%, double crop 75.98% and treble crop land 9.09%. Cultivable land under irrigation 7978.55 hectares.

Main crops: Paddy, wheat, potato, sugarcane, chilli, peanut, vegetables, mustard, sesame and pulses.

Fisheries, dairies, poultries Dairy 31, poultry 94, hatchery 1, fish breeding centre 1.

Communication facilities- Roads: pucca 10.83 km, semi pucca 65 km and mud road 470 km.

Manufactories: Power station 1, rubber production centre 6.

Cottage industries: 371 including bamboo work, goldsmith, blacksmith, potteries, wood work, etc.

NGO activities: Operationally important NGOs are brac, asa and proshika.

Health centres: Upazila health complex 1, family welfare centre 6, satellite clinic 3.
Nearby cities: Chittagong District Town, Chondrogonj, udaipur city
Coordinates: 22°31'58"N 91°54'43"E
Share

Reviews and rating

Avatar
Rate this community